সুজন- সুশাসনের জন্য নাগরিক গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড ঢাকায় সুজনের গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

ঢাকায় সুজনের গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

Election Olympiad 13বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ২৭ নভেম্বর ২০১৩ সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক এবং ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা সিটি ইউনিটের উদ্যোগে প্রধান মিলনায়তন (২য় তলা) জাতীয় জাদুঘর, শাহবাগ, ঢাকায় গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণের তিন শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী গণতন্ত্র বিষয়ক প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা এবং কর্মশালায় অংশ নেয়। জাতীয় সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।  

গণতন্ত্র অলিম্পিয়াডের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে গণতন্ত্র ও নির্বাচন বিষয়ে তরুণ সমাজের মধ্যে গণসচেতনতা সৃষ্টি করা। এই উদ্যোগের মধ্যদিয়ে  অংশগ্রহণকারীগণ – নাগরিক অধিকার, নির্বাচন, নির্বাচন প্রক্রিয়া, বিগত নির্বাচনসমূহের তথ্য/ ফলাফল, নির্বাচনী আইন ও বিধি-বিধান, নির্বাচন কমিশন, নির্বাচনী ব্যয়, নির্বাচনী আচরণ বিধি ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে সচেতন হচ্ছে। শুধু তাই নয় এই উদ্যোগের মধ্যদিয়ে অংশগ্রহণকারীগণ নির্বাচন সম্পর্কে গণসচেতনতা বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখতে উদ্বুদ্ধ হবে বলে সুজন বিশ্বাস করে।

অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণকারীগণ ৫০ নাম্বারের একটি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। মোট ১০ জনকে বিজয়ী ঘোষণা ও পুরস্কৃত করা হয়। প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান অধিকার করেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আল আমিন, ২য় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. আমিনুল এহসান এবং ৩য় স্থান অধিকার করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যায়ের মো. রাসেল খান। এ ছাড়াও ৪র্থ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. তৌফিকুর রহমান, ৫ম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. নিজাম উদ্দীন, ৬ষ্ঠ ঢাকা কলেজের মো. আবদুর রহিম, ৭ম জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবদুর রহমান, ৮ম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মো. তাজুল ইসলাম, ৯ম ঢকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শোয়াইব আহমদ এবং ১০ম স্থান অধিকার করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাইমুল হক। একই সঙ্গে সকল অংশগ্রহণকারীকে অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের স্বীকৃতি স্বরূপ সনদ পত্র প্রদান করা হয়। শুধুমাত্র প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাই নয় অংশগ্রহণকারী ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দকে নিয়ে একটি মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। আলোচনা অনুষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রীগণ সুজন নেতৃবৃন্দ এবং অতিথিদের কাছে বিভিন্ন ধরণের প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নেন ও তাদের অনুভূতি প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিভিন্ন সেক্টরের প্রতিনিধিত্বকারী নাগরিকগণও খোলামেলাভাবে আলোচনায় অংশ নেন।

মুক্ত আলোচনায় বাংলাদেশ গনিত অলিম্পিয়াড কমিটির সাধারণ সম্পাদক জনাব মুনীর হাসান বলেন, রাজনীতির এ অচলাবস’া থেকে মুক্ত হতে হলে এবং দেশকে পরিবর্তন করতে চাইলে ছাত্র-ছাত্রীদেরকে জনকল্যাণমুখী রাজনীতিতে অংশ নিতে হবে এবং রাজনীতিতে সক্রিয় অংশ হতে হবে। রাজনীতিবিদ জনাব রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, রাজনীতি হতে হবে আদর্শভিত্তিক এবং জনকল্যাণকামী। যারা বুদ্ধিবৃত্তিক মানুষ তাদেরকে দল নিরপেক্ষভাবে ভূমিকা পালন করতে হবে যাতে রাজনীতিবিদগণ তাদের ভুল ত্রুটি শোধরানোর উপকরণ পায় এবং সঠিক পথে দেশকে পরিচালনা করতে পারে। গণশিক্ষা আন্দোলনের কর্মী প্রফেসর এহসানুল হক বলেন, মাত্র ৫% মানুষ পত্র পত্রিকা পড়ে। অধিকাংশ মানুষই নিরক্ষর। কিন্তু গনতন্ত্র, সুশাসন এর বার্তা সবার কাছে পৌছাতে হবে। তাই দেশের বিরাট সংখ্যক জনগোষ্ঠীকে স্বাক্ষর করার এবং শিক্ষিত করার উপর জোর দেন তিনি। উন্নয়ন কর্মী তাজিমা হোসেন মজুমদার গণতন্ত্র, সুশাসন সম্পর্কে ছাত্র-ছাত্রীদের উৎসাহ, আগ্রহ দেখে অভিভূত হন এবং ঢাকার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড আয়োজনে উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের আহ্বান জানান।

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, স্বাধীনতার মূল্য দিতে হলে নাগরিকদেরকে অতন্ত্র প্রহরীর ভূমিকা পালন করতে হবে। জাগ্রত জনতাই গণতন্ত্রের একমাত্র রক্ষাকবচ। গণতন্ত্রকে কার্যকর করার জন্য সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান এবং বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী ও কার্যকর করতে হবে। পাশাপাশি দল নিরপেক্ষ নাগরিক সমাজও প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন। তিনি নাগরিক সমাজের প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে বলেন, যে দেশে নাগরিক সমাজ যত শক্তিশালী এবং কার্যকর সে দেশে গণতন্ত্র তত কার্যকর এবং কল্যাণকর। তরুণদের মধ্যে গণতন্ত্র চর্চা উৎসাহিত করার লক্ষ্যে সুজন সারাদেশে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড আয়োজন করছে বলে তিনি সকলকে অবহিত করেন।

সুজনের কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার ছাত্র আন্দোলনের ইতিহাস উদ্বৃত করে সত্যিকারের গণতন্ত্র ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সুজন এর কার্যক্রমের অংশ হতে এবং দেশের জন্য গৌরবময় ভূমিকা পালনে সহযোগী হতে তরুণদের প্রতি আহ্বান জানান ।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইউনিট এর সহযোগী অধ্যাপক ড. আবদুস সালাম আযোজনে সভাপতিত্ব করেন। তিনি সুজনকে ধন্যবাদ জানান গণতন্ত্রকামী তরুণ নেতৃত্ব তৈরির ব্যতিক্রমী এ আয়োজনের জন্য।

Related Post

গণতন্ত্র অলিম্পিয়াডের ধারণা পত্রগণতন্ত্র অলিম্পিয়াডের ধারণা পত্র

সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক সচিবালয়: ৩/৭ আসাদ এভিনিউ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭, ফোন: ৮১১২৬২২, ৮১২৭৯৭৫, ওয়েবসাইট: www.shujan.org গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড ধারণা পত্র প্রেক্ষাপট: দুর্নীতি, দুর্বৃত্তায়ন, সাধারণ মানুষের বঞ্চনা ইত্যাদি কারণে আমাদের বহু কষ্টার্জিত গণতান্ত্রিক

সুজনের উদ্যোগে সারা দেশে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিতসুজনের উদ্যোগে সারা দেশে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি, যাতে তারা সংগঠিতভাবে গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করে এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে ‘সুজন’-এর উদ্যোগে জেলা, উপজেলা পর্যায়ে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান ‘গণতন্ত্র

সুজন এর উদ্যোগে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াডসুজন এর উদ্যোগে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড

নাগরিক হিসাবে দেশের প্রতি দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে শিক্ষার্থীদের অঙ্গীকার গ্রহণের আহ্বান বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্ম তথা কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা সংগঠিতভাবে গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে কাজ করবে – এই উদ্দেশ্যকে