অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ আমাদের অনুপ্রেরণার উৎস- স্মরণসভায় বক্তাগণ

বিশিষ্ট আইনজ্ঞ ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ‘ভোটের স্বার্থে এখন সস্তাভাবে ধর্মকে অপব্যবহার করার চেষ্টা চলছে। আমরা দেখেছি, ১৯৭১ সালে ধর্মের নামে গণহত্যা ও ধর্ষণ চালানো হয়েছিল। অথচ ধর্মকে রাজনীতি থেকে সরানোর জন্য সংবিধানে অসাম্প্রদায়িকতার কথা লেখা হয়েছিল।’

তিনি সুজন-এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ-এর পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক-এর উদ্যোগে আজ ২৭ মে ২০১৭, জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে, সকাল ১০.৩০টায় এক স্মরণসভায় উক্ত মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘বাঙালি সবসময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার ও প্রতিবাদী ছিল। যে কারণে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করতে পেরেছি, মাত্র নয় মাসে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। কিন্তু আজকে বড় চ্যালেঞ্জ হলো ন্যায়-নীতিকে কেন্দ্র করে ঐক্যবদ্ধ হওয়া। এই জন্য অন্যায়ের বিরুদ্ধে মানুষকে সংগঠিত করতে হবে।’

অধ্যাপক মোজাফ্ফর সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ নৈতিকতার প্রশ্নে কখনো আপস করেননি। আমার সৌভাগ্য যে, আমি তার সাথে একসাথে মানববন্ধন করতে পেরেছি। তিনি আমাদের অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে অনেকদিন বেঁচে থাকবেন।’

স্মরণসভায় আরও বক্তব্য দেন সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক রওনক জাহান, সুজন নির্বাহী সদস্য ও গবেষক জনাব সৈয়দ আবুল মকসুদ, সুজন জাতীয় কমিটির সদস্য বদরে আলম খান, গবেষক ড. মির্জা হাসান এবং সুজন-এর কেন্দ্রীয় সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার সরকার প্রমুখ।

ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফ্ফর অত্যন্ত মেধাবী মানুষ ছিলেন। একইসঙ্গে তিনি ছিলেন অত্যন্ত সক্রিয় ও সোচ্চার নাগরিক। যেখানেই অন্যায় দেখতেন সেখানেই তিনি প্রতিবাদী হতেন। বস্তুত তাঁর সাহসিকতা কল্পনাকেও হার মানায়। তিনি ছিলেন নাগরিক সমাজের অবিসংবাদিত নেতা।’

তিনি বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদের সাহসিকতার বহু দৃষ্টান্ত আমি নিজের চোখে দেখেছি। অন্যায়ের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতা থেকে পদত্যাগ করেন। ১৯৯৮ সালে সরকারি দলের পৃষ্ঠপোষকতায় জসিমউদ্দিন মানিক ঘটা করে তার শততম ধর্ষণ উদ্যাপন করে। অনেকে এ ব্যাপারে নিরব থাকলেও তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বুকে-পিঠে পোস্টার লাগিয়ে এককভাবে একটি চেয়ারে বসে থেকে এর প্রতিবাদ করেছিলেন। ২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদের নির্বাচনের পর সুজন-এর পক্ষ থেকে আয়োজিত একটি সংবাদ সম্মেলন থেকে তিনি শেখ হাসিনাকে বিচারিক প্রক্রিয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে রজু করা সকল ফৌজদারি মামলা নিষ্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান। অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদের কাছে এটি ছিল নীতি-নৈতিকতার বিষয়, তাই অনেকের প্রতিবাদ সত্ত্বেও তিনি তাঁর অবস্থানে অনড় ছিলেন।’

বদিউল আলম মজুমদার বলেন, ‘আলোকবর্তিকাতুল্য এই মানুষটির অভাব আজ গভীরভাবে অনুভব করছি। তার কীর্ত্তি, নেতৃত্ব, সততা, নিষ্ঠা ও সাহসিকতা আজও আমাদের পথ দেখায়, আজও আমাদের অনুপ্রেরণা যোগায়।’

ড. রওনক জাহান বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ সবার ডাকে সাড়া দিতেন। অজুহাত দেখাতেন না। এমনকি শারীরিক অসুস্থতা সত্ত্বেও জনকল্যাণে তিনি সোচ্চার ও প্রতিবাদী ভূমিকা পালন করেছেন। তাকে অনেক সময় নিন্দা শুনতে হয়েছে বিশেষ করে রাজনৈতিক দল থেকে, কিন্তু তিনি দমে যাননি।’

সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ একজন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। তিনি নাগরিক সমাজের নেতৃস্থানীয় প্রতিনিধি ছিলেন। মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য তিনি রাজপথে ছিলেন। তিনি কাজ করেছেন মনের তাগিদে, সম্পূর্ণ স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে। তিনি অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চেয়েছেন। আজকে যখন দেশে সুশাসনের অভাব রয়েছে তখন তাকে আমরা গভীরভাবে অনুভব করছি।’

দিলীপ কুমার সরকার বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ ছিলেন ধর্মের প্রতি অনুগত একজন অসাম্প্রদায়িক ও প্রগতিশীল মানুষ। তার নেতৃত্বে সৃষ্ট সুজন-এর মূলনীতির মধ্যে অন্যতম নীতি হচ্ছে অসাম্প্রদায়িকতা। আজকে আমরা যখন দেখছি সাম্প্রদায়িক শক্তির সাথে রাষ্ট্রকে আপস করতে। আমরা রাষ্ট্রের এই আপসকামিতার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

ড. মির্জা হাসান বলেন, ‘অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ-এর ছিল গভীর কর্তব্যবোধ। উনি বুদ্ধিবৃত্তিক মানুষ ছিলেন। তিনি ধর্মনিরপেক্ষতার সাথে ইসলামের প্রগতিশীলতা মিলিয়ে জীবন পরিচালনা করেছেন। অথচ আজকে আমরা দেখি অনেক প্রগতিশীল বুদ্ধিজীবীই তাদের জীবন থেকে ধর্মকে দূরে রাখেন।’

অধ্যাপক মোজাফ্ফর আহমদ এর সংক্ষিপ্ত জীবনী পড়তে এখানে ক্লিক  করুন

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s